মেনু নির্বাচন করুন

প্রখ্যাত ব্যক্তি

আড়াইহাজার উপজেলায় ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নে মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষাবিদ, সমাজসেবক ও সাহিত্যিকসহ দেশের গুরুত্বপূর্ণ মুহুর্তে অবদান রেখেছেন এমন অনেক ব্যক্তিত্ব রয়েছে যার মধ্যে উল্লেখ্যযোগ্যঃ

 

সামসুল হক খন্দকার:

বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার সামসুল হক খন্দকার ১৯২৮ সালে ২৩ নভেম্বর ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নের লস্করদী গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৪৫ সালে আই.এ পরীক্ষায় তিনি সম্মিলিত মেধাতালিকায় নবম ও মুলসমান ছাত্রদের মধ্যে প্রথম স্থান লাভ করে ফাষ্ট গ্রেট সিনিয়র স্কলারশীপ ও "ডলেনি" পদক লাভ করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালেয়র ভাইস চ্যান্সলরের সচিব ও অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি ছিলেন।

 

ড. জহিরুল ইসলাম ভূইয়া :

বাংলাদেশ প্রাইমারী শিক্ষা বিভাগের ডাইরেক্টর জেনারেল ড. জহিরুল ইসলাম ভূইয়া ১৯৩২ সালে ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নের লস্করদী গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বাংলাদেশ কলেজ সমিতির সভাপতি এবং ১৯৮৪ সালে বাংলাদেশ সরকারের প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের মহাপরিচালক ছিলেন।

 

রুহুল আমি বাবুল:

১৯৪৫ সালে ২৬ শে এপ্রিল দিঘলদী গ্রামে জন্ম গ্রহন করেন। তিনি ছড়া কবিতা লিখে সুনাম অর্জন করেছেন। তবে ইনি অনেক গল্পও লিখেছেন এবং কয়েকটি পত্রিকার সম্পাদনাও করেছেন। আরও যারা সাহিত্য ও সংস্কৃতিতে অবদান রেখেছেন তাদের মধ্যে মুন্সী হাবিবুল্লা, মোফাজ্জল সামস এর নাম বিশেষ ভাবে উল্লেখযোগ্য।

 

 

অনুপম হায়াৎ: 

তিনি সাংবাদিক জগৎএ বিশেষ এক অবিশ্বরণীয় নাম। তিরি ১৯৫০ সালে ১লা জুন উজান গোবিন্দী গ্রামে জন্মগ্রহন করেন। সাংবাদিক হিসেবে তিনি বাচসাচ এর এস এম পারভেজ স্মৃতি পদক,কবি জসিমউদ্দীন সাহিত্য স্মৃতি পদক,টেলিভিশন রিপোটার্স এসোসিয়েশন পদক,প্রভৃতি পুরস্কার লাভ করেন।

 

মুক্তিযুদ্ধা আব্দুল বাছেদ খানঃ

পিতা মৃত মোঃ আবুল কাসেম খান, মাতা- মৃত মোসাঃ রহিমা বেগম, গ্রাম-ছোট বিনাইরচর ,থানা- আড়াইহাজার , জেলা-নারায়ণগঞ্জ।  তিনি ৩০-১২-১৯৫৪ইং সনে ছোট বিনাইরচর গ্রামে জন্ম গ্রহন করেন। তিনি "স্থানীয় ও রাজস্ব এবং প্রতিরক্ষা" অডিটের মহা পরিচালক ছিলেন ।

বর্তমানে "সিনিয়র কনসালটেন্ট" (পরামর্শক) হিসাবে অর্থ মন্ত্রনালয়ে কর্মরত আছেন। তিনি " নারায়ণগঞ্জ জেলা অফিসার্স ফোরাম" এবং " আড়াইহাজার থানা চাকুরী জীবি ( ঢাকা প্রবাসী ) সমিতির বর্তমান সভাপতি। লেখা লেখিতে তার বেশ সুনাম রয়েছে। ইতিমধ্যে তার রচিত "জীবন চলার পথে" এবং "কোর আন ও আদর্শ মানব" প্রকাশিত হয়েছে।তিনি সরকারী সফরে বিশ্বের বহু দেশ ভ্রমন করেছেন।

 

সাহিদা বেগম:

সাহিত্য জগৎ এ একজন সুপরিচিত ব্যক্তি।  তিনি মুক্তিযুদ্ধে নয়মাস আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা এবং আরও অনেক গ্রন্হের প্রনেতা তিনিই হলেন সাহিদা বেগম। তিনি ১৯৫৫ সালে ১লা জুলাই বিনাইরচর গ্রামে জন্মগ্রহন করেন। কর্মজীবনে তিনি বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের একজন সহকারী এটর্ণী জেনারেল হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

 

 

হাজী মোঃ জয়নাল আবেদিন ( বিশিষ্ট শিল্পপতি)

 

মোঃ মাইনুল ইসলাম - পি  এইচ ডি কানাডা (গবেষক ক্যান্সার  রোগ ও ম্যাডিসিন)

 

ডাঃ কাজী শাহানুর আলম  (এম বি বি এস , এফ সি পি এস, মেডিসিনঃ

তিনি ০১/০১/১৯৭০ সালে ছোট বিনাইচর গ্রামে জন্ম গ্রহন করেন।  বর্তমানে সহযোগী অধ্যাপক হিসাবে " ন্যাশনাল ইনষ্টিটিউটফ কিডনী ডিজিজেস এন্ড ইউ ইউরোলজী হসপিটালে কর্মরত আছেন। তিনি বিশ্ব কিডনী সম্মেলনে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সেমিনারে বাংলাদেশের হয়ে অংশ গ্রহন করে থাকেন।